অস্ত্র ঠেকিয়ে প্রবাসীর স্ত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ, যুবলীগ নেতা গ্রেফতার

0
56

চাটখিল উপজেলার নোয়াখলা ইউনিয়নে এক প্রবাসীর স্ত্রীকে (২৩) ঘরে প্রবেশ করে ধর্ষণের অভিযোগে যুবলীগ নেতা মুজিবুর রহমান শরীফকে (৩০) গ্রেফতার করেছে চাটখিল থানা পুলিশ। গ্রেফতার মজিবুর রহমান শরীফ রফিক উল্যার ছেলে এবং নোয়াখলা ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি। তার বিরুদ্ধে চাটখিল থানায় ধর্ষণ, ছিনতাই, চাঁদাবাজি ও টেন্ডারবাজিসহ বিভিন্ন সন্ত্রাসী কার্যকলাপের ঘটনায় ৮টি মামলা রয়েছে।

বুধবার (২১ অক্টোবর) ধর্ষণের শিকার গৃহবধূ মুজিবুর রহমান শরীফের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগে চাটখিল থানায় মামলা দায়ের করেন।

অপরদিকে, নির্যাতনের শিকার নারীকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। পরে দুপুরে প্রবাসীর স্ত্রীর দায়ের করা মামলায় যুবলীগ নেতা মজিবুর রহমান শরীফকে ইয়াছিন হাজীর বাজার সংলগ্ন এলাকা থেকে গ্রেফতার করা হয়।

নির্যাতনের শিকার গৃহবধূর দায়ের করা অভিযোগ থেকে জানা যায়, বুধবার ভোর ৫টার সময় সন্ত্রাসী শরীফ প্রবাসীর স্ত্রীর ঘরের দরজা ভেঙে ভেতরে প্রবেশ করে। পরে শোবার ঘরে গিয়ে অস্ত্র ঠেকিয়ে দুই শিশু সন্তানের সামনে ওই নারীকে ধর্ষণ করে। এ সময় শরীফ বাহিনীর কয়েকজন সশস্ত্র ক্যাডার ঘরের চারপাশে পাহারা দেয়। তাদের ভয়ে বাড়ির লোকজন কেউ এগিয়ে আসেনি।

নোয়াখলা ইউনিয়নসহ চাটখিল দক্ষিণাঞ্চলের মানুষ শরীফ ও তার বাহিনীর সদস্যদের কাছে জিম্মি হয়ে আছে। এ বাহিনীর বিরুদ্ধে কেউ প্রতিবাদ করতে সাহস পায় না।

চাটখিল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আনোয়ারুল ইসলাম বলেন, গৃহবধূর অভিযোগের ভিত্তিতে শরীফকে গ্রেফতার করা হয়েছে। ওই গৃহবধূকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এছাড়া শরীফের সহযোগীদেরও গ্রেফতারে অভিযান চলছে।

এদিকে ঘটনা প্রকাশ পাওয়ার পর চাটখিল উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক মোহাম্মদ উল্লাহ পাটোয়ারী ও যুগ্ম আহবায়ক সাজ্জাদ হোসেন স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, নোয়াখলা ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতির পদ থেকে শরীফকে বহিষ্কার করা হয়েছে।

নোয়াখালী-১ আসনের সংসদ সদস্য এইচ এম ইব্রাহিম এ ঘটনার তীব্র নিন্দা জানিয়ে জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here